আকাশ বার্তা
Next Prev

পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের এই ১০টি অলৌকিক রহস্য যার উত্তর আজও মেলেনি!

পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের এই ১০টি অলৌকিক রহস্য! শুনলে আপনি চমকে উঠবেন

আকাশবার্তা অনলাইন ডেস্ক:- ঈশ্বরে বিশ্বাস করে এমন মানুষের সংখ্যা নেহাত কম নয়। অনেকেই ঈশ্বরে বিশ্বাস করেন না। কিন্তু একথা অস্বীকার করার কোন উপায় নেই যে আমাদের জীবনকে মসৃণ সুন্দর করে তুলতে ঈশ্বরের অবদান রয়েছে সম্পূর্ণ রকম ভাবে। তবে যদি কোন কারণে আলোচনা করতে হয় পুরীর জগন্নাথ মন্দির নিয়ে তাহলে অতি অবশ্যই আলোচনা করতে হবে তার রহস্যময় কিছু ঘটনা সম্পর্কে। বছরের পর বছর ধরে পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের রথযাত্রা হয়ে আসছে। এ কথা আমরা প্রত্যেকেই জানি। ২০২১ সালে মহামারীর প্রভাব কিছুটা হলেও দেখা গেলেও বন্ধ হয়ে যায়নি রথযাত্রা। কিন্তু পুরীর এই রহস্যময় ঘটনা গুলো শুনলে আপনিও অবাক হবেন।

এক নজরে আজকের সমস্ত ব্রেকিং নিউজ

কি সেই রহস্যময় ঘটনা:

পুরীর মন্দির ঘিরে যে সমস্ত রহস্যময় ঘটনা গুলি রয়েছে সেগুলোর ব্যাখ্যা বহু বছর ধরে খুঁজে পায়নি কোন মানুষ। এমনকি কোন বিজ্ঞানীরাও যেমন ধরুন

পতাকা:

পুরীর মন্দিরের উপর যে পতাকা লাগানো আছে সেটি সর্বদা হাওয়ার বিপরীত দিকে উড়তে থাকে। অর্থাৎ হাওয়ার গতিবেগ যেদিকে হয় সাধারণত পতাকা সেদিকে ওড়ে। কিন্তু এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম দেখা যায়  এর কারণ কী তা আজও অজানা সকলের কাছে।

আরও পড়ুন - জীবনে খারাপ সময় আসলে মেনে চলুন শ্রীকৃষ্ণের এই তিনটি কথা, খারাপ সময় কেটে আসবে সুসময়

সুদর্শন চক্র:

পুরী মন্দিরের যে সুদর্শন চক্র রয়েছে যার ওজন ২০ কেজি। এই সুদর্শন চক্র কে পুরী শহরের যে কোন জায়গা থেকে দেখতে পাওয়া যায়। আড়াল আবডাল কাটিয়ে কিভাবে যেকোনো জায়গা থেকে এই চক্র কে দেখা যায় সে বিষয়ে কারোর  কোনো তথ্য জানা নেই।


দেখা যায় না পাখি:

পুরীর মন্দিরের উপরে কোনদিন কোন পাখি এমনকি কোনো বিমানকে উড়তে দেখা যায়নি। সেখানকার স্থানীয় লোকেদের এমনটা বিশ্বাস যে জগন্নাথ দেবের উপর আর কোন ঈশ্বর বিরাজ করেন না। এই ইঙ্গিত বছরের পর বছর ধরে দিয়ে যাচ্ছেন তিনি  তাই এমনটা ঘটতে দেখা যায়।

ছায়া পড়েনা:

আমরা জানি যে কোন বস্তুর ওপর যদি আলো পড়ে তাহলে তার ছায়ার সৃষ্টি হয়। কিন্তু পুরীর জগন্নাথ মন্দির হচ্ছে এমন একটি মন্দির যার ছায়া কোনদিন মাটিতে পড়ে নি আজ অব্দি।

আরও পড়ুন - কিভাবে মৃত্যু হয়েছিল শ্রী রাধার? জানুন রাধার অবাক করা মৃত্যু রহস্য!

ভোগ শেষ হয়না:

সমীক্ষা বলছে প্রতিদিন পুরীর জগন্নাথ মন্দিরে ২০০০ থেকে ২০ হাজার মানুষ ভোগ খান। কিন্তু কোন দিনই এই ভোগ শেষ হয়ে যায়নি। অর্থাৎ কেউ না খেতে পেয়ে ঘুরে গেছে এমন ঘটনা ঘটেনি।

সিংহদ্বার:

জগন্নাথ মন্দিরের মোট ৪ টি দরজা রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম হল সিংহদ্বার। সিংহদ্বারের আগে পর্যন্ত গেলেই সেখানে সমুদ্রের হাওয়ার শব্দ শোনা যায়। তবে তারপর মন্দিরে প্রবেশ করলে আর কোনও শব্দই শোনা যায়না।

আপনি কী এই নিউজগুলি পড়েছেন? পড়ুন আজকের বাছাই করা ব্রেকিং নিউজের আপডেট

রাজনীতি

তথ্য ও প্রযুক্তি

বিনোদন