আকাশ বার্তা
Next Prev

ঠাকুর ঘরে এই দেবতার ছবি ভুলেও রাখা উচিত নয়, ধীরে ধীরে শেষ হয়ে যায় সংসার!

জানেন ঠাকুরঘরে কোন দেবতার মূর্তি একের বেশি অধিক রাখলে তার ফল কী হতে পারে?

আকাশ বার্তা অনলাইন ডেস্ক - হিন্দু শাস্ত্র মতে এ বিশ্বে তেত্রিশ কোটি দেবদেবীর বাস। এবং প্রত্যেক দেবদেবীকেই পরম পূজনীয় জ্ঞানে সেবা করা হয়। সেই মতোই প্রতিটি হিন্দু বাড়িতেই নিজের মতো করে বা পুরোহিত মশাইকে জিজ্ঞেস করে নির্দিষ্ট স্থানে তৈরী করা হয় ঠাকুর ঘর। যেখানে অনেকেই বিভিন্ন দেবদেবীর মূর্তি বা ছবি রেখে পরম শ্রদ্ধা জ্ঞানে পুজো করেন। তবে আপনি কি জানেন শাস্ত্র মেনে দেবদেবীর পূজা করা উচিৎ। নাহলে বাড়িতে দেখা দিতে পারে সমস্যা। কাজেই ঠাকুর ঘরে মূর্তি প্রতিষ্ঠার আগে জেনে নিন কিছু নিয়ম। যেগুলি না মেনে চললে পারিবারিক সংকটের মুখে পড়তে পারেন আপনি ।

আরও পড়ুন -   কাল রাতেই মঙ্গলে প্রবেশ করেছে কন্যা রাশিতে, কাজে বাঁধার সম্মুখীন হতে পারেন এই ৪ রাশি
এক নজরে আজকের সমস্ত ব্রেকিং নিউজ

শিব লিঙ্গ প্রতিষ্ঠা - শাস্ত্র মতে বাড়িতে কখনোই শিব লিঙ্গ প্রতিষ্ঠা করা উচিৎ নয়। একটি শিব লিঙ্গ যদিও বা আপনি প্রতিষ্ঠা করেন তবুও একই বাড়িতে একই সাথে দুটি শিবলিঙ্গ প্রতিষ্ঠা করা একেবারেই আপনার পরিবারের জন্য শুভ নয়। যদি তবুও আপনার ঠাকুর ঘরে একটি শিব লিঙ্গ প্রতিষ্ঠা করার বাসনা থাকে সেক্ষেত্রে বেশ কিছু নিয়ম আপনাকে মেনে চলতে হবে। যেমন শিব লিঙ্গ পূজা করার জন্য বিশেষ কিছু নিয়ম থাকে। আপনি যদি সেই সমস্ত নিয়ম গুলি সঠিকভাবে মেনে প্রত্যহ পূজা করতে পারেন তবেই শিব লিঙ্গ বাড়িতে প্রতিষ্ঠা করা উচিৎ। এছাড়াও শিবের মূর্তি বা শিব লিঙ্গ সবসময় কোন কিছুর ওপর বা পরিষ্কার সাদা কাপড়ের উপর বাড়ির উত্তর পূর্ব দিকে রাখা বাঞ্চনীয়। কখনোই খালি জায়গায় শিব মূর্তি রাখা উচিৎ নয়। কাজেই এই নিয়ম গুলি না মেনে চললে আপনার পারিবারিক অশান্তি, অর্থ কষ্ট বৃদ্ধি পেতে থাকবে। তবে শাস্ত্র মতে বলা হয়েছে বাড়িতে শিব লিঙ্গ না রাখা গেলেও শিবের মূর্তি প্রতিষ্ঠা করা যেতে পারে। যা আপনার জন্য কল্যাণকর।

মা দুর্গা, সরস্বতী ও লক্ষী - পরিবারের কল্যাণ, আর্থিক ও পরিবারের সুখ বৃদ্ধির জন্য আপনার ঠাকুর ঘরে অবশ্যই মা দুর্গা, সরস্বতী ও লক্ষী দেবীর মূর্তি একসাথে রাখা খুবই মঙ্গলের। তবে সে ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে এই তিন দেবদেবীর মূর্তি যেন ঠাকুরঘরে একটি করেই থাকে। কারন একই দেবদেবীর মূর্তি একের বেশীবার প্রতিষ্ঠা করা পরিবারের জন্য শুভ নয়। 

আরও পড়ুন -   বাড়িতে তুলসী গাছের পাশে ভুলেও রাখবেন না এই পাঁচটি জিনিস, সংসারে নেমে আসবে তুলসী দেবীর অভিশাপ!

গণেশের মূর্তি - হিন্দু শাস্ত্র মতে গণেশ ঠাকুরই হলো প্রথম পূজ্য দেবতা। একই সাথে গণেশ ঠাকুর কে মানা হয় সৌভাগ্য ও সমৃদ্ধির দেবতা। আর সেই কারণেই প্রতিটি পুজোর আগে বা যেকোন শুভ কাজের আগেই করা হয় গণেশ পুজো। কাজেই বাড়িতে সৌভাগ্য ও সমৃদ্ধির পরিবেশ বজায় রাখতে গণেশ ঠাকুরের মূর্তি রাখা খুবই সৌভাগ্যের। তবে এজন্য আপনাকে মানতে হবে বেশ কয়েকটি নিয়ম। যেমন একটি ঠাকুরঘরে কখনোই একসাথে তিনটি গণেশ জির মূর্তি বা ছবি রাখা উচিৎ নয়। এছাড়াও গণেশ ঠাকুরের মূর্তি বা ছবি সবসময় কোন হলুদ রঙের আসনের ওপর প্রতিষ্ঠা করা উচিত। এছাড়াও শাস্ত্রে বলা হয়েছে বাড়িতে যদি নৃত্য রত গণেশ ঠাকুরের মূর্তি রাখা যায় সেক্ষেত্রে তা পরিবার ও আপনার জন্য খুবই শুভ।

ব্রহ্মা, বিষ্ণু, মহাদেব, ইন্দ্র দেব ও সূর্য দেবের মূর্তি - এই পাঁচ দেবতার মূর্তি যদি আপনি বাড়িতে প্রতিষ্ঠা করেন সেক্ষেত্রে আপনার অবশ্যই জেনে রাখা দরকার সব সময় এই দেবদেবীর আসন পূর্ব দিকে থাকতে হবে এবং দেবদেবীদের মুখ থাকবে বাড়ির পশ্চিম দিকে। এর ফলে আপনার বাড়ি থেকে সমস্ত নেগেটিভ শক্তি দূর হবে। এছাড়াও হিন্দু শাস্ত্র মতে ব্রহ্মা, বিষ্ণু ও মহেশ্বর হলেন সর্ব শক্তিমান কাজেই তাদের মূর্তি ঠাকুর ঘরে রাখলে অন্য সমস্ত মূর্তির ওপর দিকে তাদের প্রতিষ্ঠা করতে হবে নচেৎ তারা রুষ্ট হবেন।

আপনি কী এই নিউজগুলি পড়েছেন? পড়ুন আজকের বাছাই করা ব্রেকিং নিউজের আপডেট

রাজনীতি

তথ্য ও প্রযুক্তি

বিনোদন