আকাশ বার্তা
Next Prev

দুপুরের ঘুম! জানেন শরীরের জন্য দুপুরে খাবার পরে ঘুম উপকারী না ক্ষতিকর? জানুন কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

ভাতঘুম কি ভালো না খারাপ? অনেকের মতে ভাত ঘুম দিলে স্থূলতা অর্থাৎ মেদ বেড়ে যায়। আবার অনেকের মতে এটি উপকারী শরীরের পক্ষে। কি জানাচ্ছে বিজ্ঞানীরা জানাবো আজকের এই প্রতিবেদনে।

আকাশবার্তা অনলাইন ডেস্ক:- দুপুরবেলায় ভালো-মন্দ কিছু খাওয়ার পর অর্থাৎ ভাতের সাথে ভালো-মন্দ কিছু খাবার পর মন চায় বিছানাতে একটু শুয়ে পড়তে। যেই আপনি বিছানা মধ্যে নিজের শরীরকে স্পর্শ করবেন তখনই মনে হবে হাতে কিছুটা সময় যেহেতু রয়েছে একটু ঘুমিয়ে নিই। এরকম করে করেই আধ ঘন্টা এক ঘন্টা কখনো কখনো আবার দুই ঘন্টা ঘুম হয়ে যায়। এই ঘুমকে সাধারণত আমরা  ভাতঘুম বলে থাকি। এই ভাতঘুম কি ভালো না খারাপ? অনেকের মতে ভাত ঘুম দিলে স্থূলতা অর্থাৎ মেদ বেড়ে যায়। আবার অনেকের মতে এটি উপকারী শরীরের পক্ষে। কি জানাচ্ছে বিজ্ঞানীরা জানাবো আজকের এই প্রতিবেদনে।

এক নজরে আজকের সমস্ত ব্রেকিং নিউজ

ঘুম কেন পায়:

সাধারণত আমরা যখন প্রয়োজনের বেশি খাবার খেয়ে ফেলি তখন ইনসুলিনের মাত্রা বেশি পরিমাণে নিঃসৃত হয়। এবং এই ইনসুলিনের মাত্রা ওঠানামা করার জন্য কিন্তু আমাদের মূলত ঘুম পায়। তবে বিশেষ আরেকটি কারণ রয়েছে। যখন আমরা অতিরিক্ত খাবার খেয়ে নি তখন প্যানক্রিয়াস ইনসুলিন তৈরি করতে থাকে। বেশি খেলে প্যানক্রিয়াস বেশি ইনসুলিন উৎপন্ন করে। ইনসুলিন বেশি উৎপন্ন হলে দুটো বিষয় ঘটে।

আরও পড়ুন - প্রতিদিন মাত্র ১টি কলা খেলে এই ১২টি কঠিন রোগ থেকে আপনি দূরে থাকবেন

এই হরমোন আপনার মস্তিষ্কে গিয়ে বিপাক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সেরোটোনিন ও মেলাটোনিনে পরিণত হয়। এই মেলাটোনিন হলো ঘুমের হরমোন। এর পাশাপাশি খাবার খেয়ে হজম করতে ৬০-৭৫ ভাগ শক্তি ব্যবহৃত হয়েছে যার ফলে আমরা ক্লান্ত হয়ে পড়ি এবং ঘুম আসে।

ভাতঘুম ভালো না খারাপ:

১) বিজ্ঞানের গবেষণায় এমনটাই উঠে এসেছে যে দুপুরে ভাত খেয়ে আধঘন্টা যদি ঘুমানো যায় তাহলে রক্তচাপের মাত্রা অর্থাৎ ব্লাড প্রেসার সঠিক থাকে বা নিয়ন্ত্রিত থাকে।

২) যদি কোন কারণে মন খারাপ থাকে বা শরীরের মধ্যে উত্তেজনা থাকে বা  রাগ সৃষ্টি হয় তাহলে বিজ্ঞানীদের মতে এমনটা বলা হচ্ছে যে অতি অবশ্যই তাহলে ভাত খেয়ে দুপুর বেলায় ঘুমানো উচিত।  এতে স্নায়ু শিথিল হয়ে পড়ে খুব তাড়াতাড়ি।  যার ফলে রাগ বা উত্তেজনা কমে আসে দ্রুত।

আরও পড়ুন - ভাত না রুটি, জানেন রাতের খাবারে কী খাওয়া উচিত? কি বলছে বিশেষজ্ঞরা?

৩) গবেষণাতে এমন উঠে এসেছে যে সমস্ত মানুষেরা ভাত খাওয়ার পর অন্তত আধ ঘন্টা ঘুমায় তাদের কিন্তু স্মৃতিশক্তি অনেকখানি বেশি হয় সাধারণ মানুষের তুলনায়।

৪) ভাতঘুম কিন্তু সৃজনশীলতা বৃদ্ধি করতেও সাহায্য করে। দুপুরে আধ ঘন্টা বা এক ঘন্টা ঘুমানোর পর সৃজনশীলতার পরিমাণ অনেকখানি বেড়ে যায়।

আপনি কী এই নিউজগুলি পড়েছেন? পড়ুন আজকের বাছাই করা ব্রেকিং নিউজের আপডেট

রাজনীতি

তথ্য ও প্রযুক্তি

বিনোদন