আকাশ বার্তা
Next Prev

চার জেলা বাদে সমস্ত জেলার মহিলাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঢুকে গেল লক্ষীর ভান্ডারের টাকা, কথা দিয়ে কথা রাখলেন মমতা!

এই চার জেলার মহিলারা বাদে বাকি সব জেলার মহিলাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঢুকে গেল লক্ষীর ভান্ডার টাকা, চেক করুন

আকাশবার্তা অনলাইন ডেস্ক: দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর শুরু হয়ে গিয়েছে বাঙালির সবথেকে বড় উৎসব দুর্গাপূজো। আর উৎসব শুরু হওয়ার আগেই প্রতিশ্রুতি রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুজোর আগেই মহিলাদের একাউন্টে পৌছে দেওয়া হল লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা। রাজ্যের বেশিরভাগ জায়গাতেই এই টাকা মায়েদের একাউন্টে পৌঁছে গিয়েছে। তবে যেসব জায়গায় এখনো টাকা দেওয়া বাকি রয়েছে সেই জায়গাগুলিতে দ্রুত কাজ চালানো হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

নবান্ন সূত্রে খবর অনুযায়ী ইতিমধ্যে প্রায় 80 লক্ষ মহিলার ব্যাংক একাউন্টে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। যাতে পুজোর আগে মায়েদের কোন রকম সমস্যার মুখোমুখি হতে না হয় তার জন্যই এই ব্যবস্থা। উল্লেখ্য গত আগস্ট মাসে এই প্রকল্পের ফর্ম ফিলাপ শুরু হয়েছিল।পুজোর আগেই যাতে টাকা পাঠিয়ে দেওয়া যায় সেই বিষয়ে নজর রেখে আধিকারিকেরা দ্রুত কাজ করছিলেন। আর সেই চেষ্টাই অত্যন্ত সফলতার সাথে সম্পন্ন হয়েছে তা নিঃসন্দেহে বলা যায়।

এক নজরে আজকের সমস্ত ব্রেকিং নিউজ

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প: প্রথম পর্যায়ে এই প্রকল্পের জন্য প্রায় 2 কোটি 48 লক্ষ্য 60 হাজার টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তী সময়ে এই টাকা বাড়িয়ে প্রায় 850 কোটি টাকা করা হয়।রাজ্যের বিপুল সংখ্যক মহিলাদের আবেদনের প্রতি নজর রেখেই এই বরাদ্দ অর্থ বাড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যাতে পুজোর আগেই মহিলাদের কাছে এই প্রকল্পের আর্থিক সাহায্য পৌঁছে যায় তাই দ্রুততার সঙ্গে কাজ করতে হবে। তার ঠিক এই প্রতিশ্রুতিই অত্যন্ত সুন্দরভাবে সমাধান হয়েছে।উল্লেখ্য দুয়ারে সরকার শিবিরে এই প্রকল্পের জন্য প্রায় 1 কোটি 79 লক্ষ্য 26 হাজার 368 টি আবেদনপত্র জমা পড়েছিল। এর মধ্যে প্রায় দেড় কোটি মহিলাদের আবেদন গ্রহণ করা হয়।বাদবাকি আবেদনপত্রগুলো যাচাইয়ের কাজে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য এই প্রকল্পের মাধ্যমে সাধারণ পরিবারের মহিলারা 500 টাকা এবং এসসি, এসটি প্রভৃতি পরিবারের মহিলারা হাজার টাকা করে প্রতিমাসে পেতে চলেছেন। এখনো পর্যন্ত যারা এই প্রকল্পের টাকা পাননি তাদের একেবারেই চিন্তার কোন কারণ নেই। পুজোর পর বাকি আবেদনকারীদের কাছেও অর্থ সাহায্য পৌঁছে দেওয়া হবে।

তবে চলতি মাসের শেষে রাজ্যের চার জেলায় চার আসনে ভোট। দিনহাটা, শান্তিপুর, খড়দা, গোসাবায় ভোট থাকায় কোচবিহার, নদিয়া, উত্তর ২৪ পরগনা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় সরকারি প্রকল্পের অর্থ সাহায্য দেওয়া যাবে না। সেক্ষেত্রে ভোটের পর এই চার জেলার মহিলাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অর্থ পৌঁছে যাবে।

তবে রাজ্যের যে কয়েকটি জেলায় আগামী 30 শে অক্টোবর উপনির্বাচন রয়েছে সেই জেলাগুলির মহিলারা আপাতত টাকা পাবেন না। নির্বাচনী আদর্শ বিধি লাঘু হয়ে যাওয়ায় সেই সব জায়গায় সরকারি প্রকল্পের কোন কাজ করা সম্ভব নয়। তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন,এসব এলাকার মহিলারা একবারে সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবর 2 মাসের টাকা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পেতে চলেছেন।

আপনি কী এই নিউজগুলি পড়েছেন? পড়ুন আজকের বাছাই করা ব্রেকিং নিউজের আপডেট

রাজনীতি

তথ্য ও প্রযুক্তি

বিনোদন