আকাশ বার্তা
Next Prev

কোজাগরী লক্ষ্মীপুজোর দিন ঠাকুরঘরে করুন এই কাজগুলি, আর্থিক সফলতা সহ মিটবে অনেক সমস্যা

লক্ষ্মী পূজার দিন করুন এই কয়েকটি টোটকা কাজ, মিলবেই সফলতা

আকাশবার্তা অনলাইন ডেস্ক:- এসো মা লক্ষ্মী বসো ঘরে আমারই ঘরে থাকো আলো করে" এই কথাটা আমরা প্রত্যেকেই বাড়ির মা কাকিমা দের মুখে অনেকবার শুনে থাকবো । লক্ষ্মী পুজোর দিন বা অন্যকোন সময় এই কথাটি মা কাকিমারা মাঝেসাজে বলে থাকে। তার একটি কারণ হচ্ছে যে আমরা প্রত্যেকেই চাই যে দেবী লক্ষ্মী যেন আমাদের ঘরে বিরাজ করেন। তার কৃপায় যেন ধন্য হয়ে ওঠে আমাদের জীবন। কারণ লক্ষীকে অর্থের দেবী হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। পুজো শেষ হয়ে গেলও আর মাত্র কয়েক ঘন্টা পরেই শুরু হতে চলেছে কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা।  এই রাজ্যের এমন অনেক জায়গা রয়েছে যেখানে বেশ জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে আয়োজিত হয় কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা।

এক নজরে আজকের সমস্ত ব্রেকিং নিউজ

কি কি করনীয়:

কোজাগরী লক্ষ্মী পুজো সময় শাস্ত্রীর মতে এমনটা বলা হচ্ছে যে বিশেষ কিছু টোটকা রয়েছে সে টোটকাগুলি যদি আপনি অনুসরণ করেন তাহলে কিন্তু আপনার সংসারে অর্থ অভাব কোনদিনই হবে না। সেই টোটকা গুলি সম্পর্কে আমরা জেনে নেবো আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে।সূর্য সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা অনুযায়ী ১৯ অক্টোবর, মঙ্গলবার সন্ধ্যে ৬টা বেজে ৪৪ মিনিট সময় পুজোর তিথি শুরু হবে। পূর্ণিমা তিথি শেষ হবে ২০ অক্টোবর, বুধবার সন্ধ্যে ৭টা বেজে ৩৬ মিনিট কৃষ্ণ প্রতিপদে। পঞ্জিকা ভেদে সময় সামান্য কিছু পৃথক হতেই পারে। প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি চলতি বছরে পূর্ণিমা তিথি দুই দিন ধরে রয়েছে।

আরও পড়ুন - দেবাদিদেব মহাদেবের এই মহা 'মৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র', পাঠে দূর হয় বিপদ ও খারাপ সময়, আসে অর্থ

কি কি করবেন:

১) পায়েস রান্না করে চাঁদের আলোয় রাখা:- লক্ষ্মী হচ্ছে ঐশ্বর্য ধনসম্পত্তি ইত্যাদির দেবী। প্রত্যেকেই চাই যে লক্ষী যেন সম্পূর্ণ রকমভাবে বিরাজ করে তার সংসারের মধ্যে। লক্ষ্মী পুজোর দিন গোবিন্দভোগ চালের পায়েস রান্না করে সেটিকে সারারাত চাঁদের আলোর মধ্যে রেখে দিন। অতি অবশ্যই তার ওপর একটি নেট ঢাকা দিয়ে দিন যাতে কোনো রকম কোনো পোকামাকড় না পরে। পরের দিন সকালবেলা বাড়ির সকলে মিলে সেই পায়েস খান এতে শরীর সতেজ থাকে তার পাশাপাশি আর্থিক সমৃদ্ধির ঘটে সংসারে।

২) নারায়ণ পূজো করুন:- লক্ষ্মীপুজো সময় অর্থাৎ কোজাগরী লক্ষ্মী পূজার সময় কেউ যদি মনে ভক্তি ভরে কোনকিছু কামনা করেন তাহলে কিন্তু তিনি সেটি পেয়ে যান। লক্ষ্মী পুজোর সময় লক্ষ্মীর আরাধনা করার সাথে সাথে নারায়ণের পুজো করুন। এতে দেবী প্রসন্ন হোন। তার পাশাপাশি পাঁচটি কুমারীকে তাদের পছন্দমতো উপহার দিন এতে দেবী প্রচন্ড মাত্রায় খুশি হোন।

৩) পূর্ণিমার রাত জাগো:- কোজগর কথার অর্থ হচ্ছে কে রাত জাগে। অর্থাৎ  শাস্ত্রে এমনটা উল্লেখ রয়েছে যে কোজাগরী লক্ষ্মী পূজার সময় পূর্ণিমার রাত জাগতে হয়। সাধারণত কোজাগরী লক্ষ্মীপুজোর পূর্ণিমা রাতে হয়ে থাকে। প্রবাদ বাক্য অনুসারে এমনটা বলা যেতেই পারে" ঘুমিয়ে লক্ষ্মী হন বিরূপা, জাগরণে লক্ষ্মীর কৃপা। নইলে কেন জাগে কোজাগরে"

৪) লক্ষ্মীর পাঁচালী পড়ুন:- লক্ষ্মী পূজার দিন অতি অবশ্যই লক্ষ্মীর পাঁচালী পড়ুন এবং ১০৮ বার গায়ত্রী মন্ত্র জপ করুন। তার পাশাপাশি লক্ষ্মী পূজার দিন লক্ষ্মীর পায়ের নিচে পাঁচটি কড়ি রেখে সেগুলিকে পুজো করুন। পরবর্তী ক্ষেত্রে সেগুলিকে ক্যাশবাক্স বা আলমারির মধ্যে রেখে দিন এতে আর্থিক সমৃদ্ধির ঘটে অনেকটা বেশি। লক্ষ্মী পুজোর দিন বাড়িতে দক্ষিণাবর্ত শঙ্খ স্থাপন করলে খুবই শুভ ফল পাওয়া যায়। 

আরও পড়ুন - লক্ষ্মীপূজোয় এই কাজগুলি ভুলেও করবেন না, সাবধান, নইলে নেমে আসবে আর্থিক সমস্যা

৫) তুলসী গাছ কে পুজো করুন:- আমাদের প্রত্যেকের বাড়িতে তুলসী গাছ থেকেই থাকে। শাস্ত্র মতে প্রতিটি বাড়িতে তুলসী গাছ রাখা অত্যন্ত জরুরি। এতে সুখ সমৃদ্ধি যেমন বজায় থাকে ঠিক তেমনি সংসারে অভাব অনটন দূর হয়ে যায় নিমিষের মধ্যে। তুলসী গাছে জল ঢালা থেকে শুরু করে পুজো  সমস্ত কিছুই কিন্তু নিয়ম বিধি মেনে পালন করতে হয়। তার পাশাপাশি শাস্ত্রে এমনটা বলা হচ্ছে যে লক্ষ্মী পূজার দিন অতি অবশ্যই কিন্তু নিষ্ঠাভরে তুলসী গাছের পুজো করুন।

আপনি কী এই নিউজগুলি পড়েছেন? পড়ুন আজকের বাছাই করা ব্রেকিং নিউজের আপডেট

রাজনীতি

তথ্য ও প্রযুক্তি

বিনোদন