আকাশ বার্তা
Next Prev

SSC নিয়ে বড় খবর! রাজ্য সরকারকে স্বস্তি দিয়ে CBI তদন্তে স্থগিতাদেশ দিলো হাইকোর্ট

CBI তদন্তে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ কলকাতা হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের!

আকাশবার্তা অনলাইন ডেস্ক : গত 2016 সালে এসএসসি (SSC) গ্রুপ-ডি (GROUP D) কর্মী হিসেবে প্রায় 13 হাজার নিয়োগের সুপারিশ করে রাজ্য সরকার। সেইমতো সেন্ট্রাল স্কুল সার্ভিস কমিশন (CENTRAL SCHOOL SERVICE COMMISSION) পরীক্ষা এবং ইন্টারভিউ নেয়, এরপর প্যানেল (PANEL) গঠিত হয়। 2019 সালে ওই প্যানেলের মেয়াদ শেষ হয়েছে, কিন্তু অভিযোগ উঠেছে প্যানেলের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও নিয়মবহির্ভূতভাবে ব্যাপক সংখ্যায় নিয়োগ করেছে কমিশন।

এর পর 25 জনের নিয়োগের সুপারিশ সংক্রান্ত তথ্য তুলে ধরে হাইকোর্টে একটি মামলা দায়ের করা হয়। হাইকোর্টের এই মামলায় সিঙ্গেল বেঞ্চ (SINGLE BENCH) রায় দিয়েছিলো সমস্ত অভিযোগের তদন্ত  সিবিআইয়ের (CBI) দ্বারা করা হবে। সিঙ্গল বেঞ্চের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ডিভিশন বেঞ্চে (DIVISION BENCH) আপেল করেছিল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। অবশেষে ডিভিশন বেঞ্চ এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে রায়দান করেছে, যার ফলে যথেষ্ট স্বস্তিতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। 

আরও পড়ুন-  লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে মাসে খরচ ৮০০ কোটি, প্রতিশ্রুতি রক্ষার্থে ঋণ নিচ্ছে মমতা সরকার!
এক নজরে আজকের সমস্ত ব্রেকিং নিউজ

কি রায় দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ? : এসএসসি নিয়োগ মামলায় সিবিআই তদন্তের অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। যার ফলে অনেকটাই স্বস্তিতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। ‌ জানা গিয়েছে এই স্থগিতাদেশ তিন সপ্তাহের জন্য বহাল থাকতে চলেছে। রাজ্যের গ্রুপ-ডি কর্মী নিয়োগে  দুর্নীতি মামলায় কেন্দ্রীয় সংস্থা সিবিআই এই মুহূর্তে তদন্ত শুরু করতে পারবে না বলে নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ। আগামী 29 শে ডিসেম্বর (29TH DECEMBER) এই মামলার চূড়ান্ত শুনানি হতে চলেছে।

আরও পড়ুন-   এলো শেষ আপডেট, এই কাজ না করলে বন্ধ হয়ে যাবে আপনার রেশন পাওয়া? হাইকোর্টে যা জানালো রাজ্য সরকার, জানুন

গত 23 শে নভেম্বর সমস্ত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চ এসএসসি গ্রুপ ডি নিয়োগের দুর্নীতি মামলার তদন্তভার তুলে দিয়েছিল সিবিআই এর হাতে। এরপরেই সিঙ্গেল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ডিভিশন বেঞ্চে আপেল করেছিল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দিয়েছে যে কমিশন এবং পর্ষদকে সমস্ত নথি জমা দিতে হবে। এবং নথিগুলি সিল করে রেজিস্টার জেনারেল (REGISTER GENERAL)  এর কাছে জমা দিতে হবে।  আজ এই রায় দিয়েছেন ডিভিশন বেঞ্চের দুই বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্ত এবং হরিশ ট্যান্ডন।

আপনি কী এই নিউজগুলি পড়েছেন? পড়ুন আজকের বাছাই করা ব্রেকিং নিউজের আপডেট

রাজনীতি

তথ্য ও প্রযুক্তি

বিনোদন